Whatsapp Update What’s 10 New Features | হোয়াটস এপের নতুন ফিচার-এ সমাজ

whatsapp update

হোয়াটসঅ্যাপ আমাদের জীবনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে উঠেছে। আসুন জেনে নেওয়া যাক এই মুহূর্তের হোয়াটস এপের নতুন আপডেট ও ফিচারগুলি নিয়ে(Let’s know the new features of whatsapp update)। অন্তত 10টি নতুন ফিচার যা Whatsapp-কে করে তুলবে আরো আকর্ষণীয়, আরো কনফিডেন্সিয়াল(At least 10 new features will make whatsapp very attractive and confidential)। এই মুহূর্তে অন্যান্য যে কোনও অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপকে প্রতিস্থাপন করতে সক্ষম নয়। এবং এটি এত জনপ্রিয় হওয়ার একটি কারণ হল- মেটা(Meta)। এই বিশেষত্বের জন্য সংস্থাটি নতুন বৈশিষ্ট্যগুলি রোল আউট করছে এবং ফ্রিকোয়েন্সি কেবল বাড়ছে।

আজকের এই লেখায় আমি আপনাদের আগামী আপডেটের সাথে আসা হোয়াটসঅ্যাপ বৈশিষ্ট্যগুলি সম্পর্কে বলার চেষ্টায় আছি। এবং এই বৈশিষ্ট্যগুলি শুধুমাত্র একটি পরিষেবাকেই গুরুত্ব দেবে তাই নয় বলা যেতে পারে একগুচ্ছ পরিষেবা আমাকে জীবনযাপনকে পাল্টে ফেলতে পারে। সেগুলি গ্রুপ, নিরাপত্তা, ভিজ্যুয়াল উপস্থিতির জন্য।

Whatsapp Update | 10 New Features-

হোয়াটসঅ্যাপ ইতিমধ্যেই meta ভার্শন শুরু করেছে। এটি সম্ভবত পরবর্তী আপডেটে রোল আউট হবে। এর মধ্যে যে যে ফিচারসগুলি হোয়াটসঅ্যাপে যুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করেছে সে গুলি নিচে দেওয়া হল-

POLL-

Poll সম্বন্ধে সাধারণ কিছু ধারনা দেওয়া প্রয়োজন। Poll- এর বাংলা অর্থ ভোট দেওয়া। কোন একটি বিষয়ের প্রেক্ষিতে হোয়াটসঅ্যাপ ইউজারদের কাছ থেকে মতামত জানতে চাওয়া হবে। সেই মতামত সাধারণত এর উত্তর ‘হ্যাঁ’ অথবা ‘না’তে হয়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে মতামতের স্বপক্ষে ও বিপক্ষে যুক্তি জানতে চাওয়া হয়। তবে স্বাভাবিক এবং সর্ব প্রচলিত পোলে মতামত হ্যাঁ এবং না এর মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে। এখন থেকেই চিন্তা শুরু করুন আপনি কি পোল পোস্ট করবেন।

Community Forum-

কমিউনিটি ফোরাম(community forum) হলো একটি বিশেষ মাধ্যম যেখানে প্রশ্নকর্তা এবং উত্তরদাতার এক মিলনস্থল। কোন ব্যক্তি কোন বিষয়ের প্রতি আগ্রহ এবং জানার ইচ্ছা কমিউনিটি ফোরামের মধ্যে রাখতে পারেন। এবং সেই বিষয়ে প্রতি যাদের আগ্রহ আছে বা সেই বিষয়ে সম্বন্ধে যিনি ওয়াকিবহাল তিনি ওই ব্যক্তির প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। একাধিক ব্যক্তি ওই প্রশ্নের উত্তর দেবার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করতে পারেন। কখনো কখনো উত্তরের মধ্যেই বিভিন্ন ধরনের হাইপারলিংক দেওয়া থাকে উত্তরদাতাদের নিজস্ব কোন ওয়েবসাইটে নিয়ে যাওয়ার জন্য। আর এখানেই বিভিন্ন ধরনের স্প্যাম হয়ে থাকে। অর্থাৎ প্রশ্নের ধরণ এবং উত্তরের ধরনের পার্থক্য এবং উত্তরদাতা উত্তরের সংখ্যাধিক্য স্প্যাম বৃদ্ধি করে।

কমিউনিটি ফোরামগুলির মধ্যে স্প্যামের দিকে লক্ষ্য রেখে হোয়াটসঅ্যাপ কমিউনিটি ফোরাম ফিচারটি শুরু কটার দিকে ক্রমশ এগিয়ে আসছে। গ্রুপের সঙ্গে কমিউনিটি ফোরাম এর সামান্য মিল থাকলেও অনেকটাই আলাদা। গ্রুপে কেবলমাত্র যাদেরকে গ্রুপে এড করা হয় তারাই এই গ্রূপে ইন্টারেকশন করতে পারেন। কিন্তু কমিউনিটি ফোরাম ওপেন টু অল। অর্থাৎ তিনি গ্ৰুপে থাকুন আর নাই থাকুন ফোরামে অংশ নিতে পারবেন। তবে গ্রুপে কমিউনিটি ফোরাম যোগ করার ব্যাপারেও নতুন কিছু অপশন যুক্ত হতে পারে।

কমিউনিটি ফোরাম(community forum) ফিচারটি 7-8 মাস আগে ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু বিভিন্ন কারণে এটি বিলম্বিত হয়েছে। প্রধান উদ্বেগ হল স্প্যাম, যা গ্রুপগুলিতে অনেক বেশি ঘটতে থাকতে বলে আশঙ্কা। তাই এটি নিয়ন্ত্রণে রাখতে স্প্যাম নামে কোন বাটন যোগ করা হবে। যেমন ট্রুকলারে বিভিন্ন ফোন নাম্বারকে স্প্যাম হিসেবে চিহ্নিত করতে পারেন, সেরকম ফোরামে উত্তর ও অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদেরকে স্পাম হিসেবে চিহ্নিত করতে পারবেন।

আপনি যদি নতুন বৈশিষ্ট্যগুলি এখনই চান, তাহলে WhatsApp মেটা ইনস্টল করুন। যেখানে আপনি সর্বশেষ feature আপডেট পাবেন। এখানে আপনি মেসেজগুলির প্রতিক্রিয়া জানাতে সক্ষম হবেন।

Log out option-

Facebook এর মতো আরও অনেক প্ল্যাটফর্ম ইতিমধ্যেই logout অপশনটি আছে। কিন্তু হোয়াটসঅ্যাপ শীঘ্রই এটি বাস্তবায়ন করবে। এই লগআউট ফিচারটি সম্পর্কে অনেকেই উত্তেজিত। আপনি যদি একাধিক ডিভাইসে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন, তবে আপনি এটি শুধুমাত্র একটি ডিভাইসে ব্যবহার করতে পারেন। অন্য ডিভাইসে সক্রিয় করার জন্য আপনাকে একটি ডিভাইস থেকে লগআউট করতে হবে।

Hide ‘Last Seen’ Option-

কোন ফ্রেন্ডের প্রোফাইল অথবা তার সঙ্গে চ্যাট ইন্টারেকশন খোলার সাথে সাথে সেই বন্ধুর নামের নিচে লাস্ট সিন বলে একটি ডায়লগ ডান দিক থেকে বাম দিকে মুভ করতে থাকে। কত তারিখে কটার সময় হোয়াটসঅ্যাপ খুলে ছিল তার স্ট্যাটাস দেখায়। ঠিক সেভাবেই আপনার স্ট্যাটাস আপনার বন্ধুরা দেখতে পায়। যেহেতু গোপনীয়তা একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, আমরা কিছু লোকের কাছ থেকে আমাদের লাস্ট সিন লুকানোর প্রয়োজন অনুভব করতে পারি। বর্তমানে আপনি যদি শেষ দেখাটি লুকিয়ে রাখেন, তবে এটি সবার কাছ থেকে হাইড থাকবে। কিন্তু এখন আপনি এর থেকে বেছে নিতে পারেন আপনি যে লোকেদের কাছ থেকে পরিচিতি বা লাস্ট সিন লুকাতে চান।

Delete Messages-

মেসেজগুলি ডিলিট করুন বৈশিষ্ট্যটি অনেক আগেই উন্নত করা হয়েছে। আপনাকে 30 সেকেন্ডের সাথে মুছে ফেলতে হত এবং তা এখন 70 মিনিট পর্যন্ত বাড়িয়েছে। তবে এখন কোনও সময়সীমা থাকবে না। অর্থাৎ যখন খুশি সেগুলি ডিলিট করতে পারবেন।

Search Messages-

বর্তমানে আপনি কোনও message search করতে পারেন না। সার্চ করলে এটি সমস্ত বন্ধুদের চ্যাটের ক্ষেত্রেই দেখা যায়। কিন্তু এখন আপনি পৃথক ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর জন্য search করতে পারবেন। শুধু প্রোফাইলে ক্লিক করুন এবং তৎক্ষণাৎ search-এর ফলাফল দেখাবে।

Profile Photo Notification-

অনেক সময় আমরা notification গুলিকে উপেক্ষা করি, তাই বুঝতে পারিনা কে মেসেজ বা ছবি পাঠালো। এখন আপনি notification থেকে প্রোফাইল ফটো দেখতে পারবেন। অর্থাৎ সহজেই সেন্ডারের ছবি দেখে মেসেজগুলিকা ডিলিট অথবা রাখতে পারবেন।

Read Later-

আমরা সাধারণত archive মেসেজগুলিতে সেরকম মনোযোগ দিই না। এখন একটি নতুন ফিচার আসছে যেখানে আপনি পরবর্তিতে বার্তাগুলি পড়তে পারবেন। whatsapp Read Later নামে একটি নতুন ফিচার আনছে, যা archive ফিচার থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন।

Forwarder Messages-

বর্তমানে আমরা একসঙ্গে যতজনকে অথবা যত গ্রুপে যেকোন মেসেজ, ভিডিও বা ডকুমেন্ট forward করতে পারি। ঠিক একারণেই spam একটি স্বাভাবিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অন্যদের সেই মেসেজের প্রতি আগ্রহ থাক বা না থাক, তার whatsapp -এ এগুলি নিমেষেই প্রবেশ করছে। এজন্য whatsapp নতুন feature আনছে। এখন আপনি একসঙ্গে শুধুমাত্র 5 জনকে বার্তা পাঠাতে পারবেন এবং ্whatsapp কোম্পানী এটিকে আরও সীমিত করার পরিকল্পনা করছে। কারণ অনেক লোকের স্প্যাম করার পছন্দকে সমূলে বিনাশ করতে চায়। পরবর্তিতে আপনি শুধুমাত্র একজনকেই বার্তা ফরোয়ার্ড করতে পারবেন।

হোয়াটস এপের নতুন ফিচার-এ সমাজ-

সশরীরে সামাজিক মেলামেশা থেকে মানুষ দিন দিন বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে। হাতের মোবাইলটি এখন সারা বিশ্ব। বন্ধু বলতে মোবাইলের মধ্যে থাকা অজস্র এপ। তাদের মধ্যে আছে সোসাল মিডিয়া। সমাজ বলতে এখন ফেসবুক, হোয়াটসএপ, টেলিগ্রাম, শেয়ারচ্যাট ইত্যাদি্র রমরমা বাজার। স্বভাবতই ঐ এপগুলিকে সযত্নে লালন করা কোম্পানীগুলির মুল উদ্দেশ্য। নতুন নতুন ফিচার যোগ করে তাকে আরো আকর্ষনীয় করে তোলা হল তাদের প্রধান লক্ষ্য। মানুষকে অভ্যাসে পরিণত করতে পারলেই উদ্দেশ্য সার্থক।

একদিকে ভোগ্য পণ্যের প্রতি অভ্যাস ও অন্যদিকে মানুষকেই পণ্যে পরিণত করা, এই দুইয়ের সংমিশ্রণে তৈরি হয় এক বৃহৎ বাজার ও তা দির্ঘস্থায়ী হওয়ার অসীম সম্ভাবনা। মানুষও কখন যে দ্রব্যে পরিণত হয়ে ব্যাভার হচ্ছে জানতেই পারছে না। পূর্বেই খোশ মেজাজে Whatsapp ব্যাবহার করেছে নতুন ফিচারে আরো ব্যাবহার করবে। তবে আপনাদের মতামতও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। মতামের আশায় রইলাম। কমেণ্ট করুন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন

মহিলাদের প্রতি প্রকৃত দৃষ্টিভঙ্গি
সমাজে টি ভি সিরিয়ালের প্রভাব
বয়স্ক মা-বাবাকে অবহেলা- ভয়ানক অপরাধ
একান্নবর্তী পরিবার ও অনু পরিবার এবং সমাজ
ভারতীয় সমাজে নারীর অবস্থান
আঁতুড়ঘরে 1 মাস
বিধবা বিবাহ
ভারতের বিস্ময় কন্যা জাহ্নবী পানোয়ার

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.