আশ্চর্য প্রতিভা Jetshen Dohna Lama Biography | জেটশেন দোহনা লামা

আজ জেটশেন দোহনা লামা’র জীবনী/Jetshen Dohna Lama Biography জানবো। সারা ভারত জুড়ে আজ Jetshen Dohna Lama/জেটশেন দোহনা লামা’র নাম ছড়িয়ে পড়েছে। কিন্তু অনেকেই জানি না কে এই জেটশেন দোহনা লামা, কোথায় তার বাড়ি? সে কি করে? আসুন স্বল্প সময়ের মধ্যে জেনে ফেলি তার জীবনের খুঁটিনাটি বিষয়গুলোকে।

Jetshen Dohna Lama Biography | জেটশেন দোহনা লামা জীবনী

সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পস হিন্দি ২০২২ এক অসাধারণ প্রতিভাবান প্রতিযোগী। আয়োজক zee tv। সারা ভারত তথা বিশ্বজুড়ে সংগীতের এক বিশাল প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ছে তার কৃতিত্ব। সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পস প্রতিযোগিতাটি একটি বিগ ব্যাংএর মতো ছোট্ট বিন্দু দিয়ে শুরু হয়েছিল এবং বর্তমানে ভারত জুড়ে বিশেষ উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। 

Jetshen Dohna Lama Biography

এবার লিটল চ্যাম্পের নতুন মরসুমটি খুব মেধাবী এবং নতুন প্রতিযোগীদের স্বাগত জানিয়েছে। আপনি জেটশেন দোহনা লামা সহ অন্যান্য প্রতিযোগীদের আগে কোনও টিভি শোতে কখনও দেখেন নি। জেটশেন দোহনা লামা এমন একটি শোতে সুন্দর এবং প্রতিভাবান প্রতিযোগীর ভূমিকা গ্রহণ করেছেন, যা দেখে বিচারক, জুরি এবং এমনকি শ্রোতারাও অত্যন্ত অভিভূত। শোতে তার সংগীত পরিবেশন সারেগামাপা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী সহ টিভি শ্রোতাদের ও অবাক করে দেয়। জেটশেন দোহনা লামা উইকি, জীবনী, বয়স, শহর, পরিবার সম্বন্ধে যা কিছু জানা গেছে বিশদে এখানে প্রকাশিত হয়েছে। ভালো লাগলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানান।

মৃদুভাষী-

জেটসেন দোহনা লামা খুব নরম সুরে এবং মৃদু ভাষায় কথা বলে। কখনো কখনো তা সাদামাটা কথাবার্তা ঠিকমত কানে আসে না- এতটাই মৃদু ভাষি। খুব সুন্দর মেয়ে। সে তার মা ইউনিশ হামালের সাথে সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পর 2022 অডিশনের জন্য এসেছিল।

তার মা জেটশান সম্পর্কে তার মত প্রকাশ করেন। তিনি জেটশেনকে নিয়ে খুবই উদ্বিগ্ন। কারণ তিনি শৈশব থেকেই খুব লাজুক এবং অন্তর্মুখী ধরণের মেয়ে। তার মা বলেন সে একা থাকতে পছন্দ করে। তবে সে গাওয়ার প্রতি খুব আগ্রহী। তার মা চান যে জেসেনকে সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পের অন্যান্য বাচ্চাদের সাথে থাকতে ভালভাবে অভ্যাস করে তুলুক। জেটশেনের মা উনিশ চান জেটসেন এত ভাল গান করে, তাই তিনি তার গান গাওয়ার ক্ষেত্রটির মাধ্যমে সুন্দর ভবিষ্যত তৈরি করতে চান।

প্রথম পারফরমেন্স-

জেটসেন লামা তার অডিশনের পারফরম্যান্সের আগে অত্যন্ত ঘাবড়ে গিয়েছিল। তবে সে যেভাবে উদী গানটি সম্পাদন করেছিলেন, বিচারকরা হতবাক এবং হতভম্ব হয়ে যান। জেটসেন যখন গান শুরুর পূর্বে তার ব্যক্তিত্বের সম্পূর্ণ ভিন্ন এবং একটি বিপরীত দিক দেখা গিয়েছিল।

কিন্তু পারফরম্যান্সে ভিন্নধর্মী ব্যক্তিত্ব উপস্থিত হয়। তিনি সুনিধি চৌহানের ‘উদী’ গানে অডিশনের সময় সংগীত পরিবেশন করেছিলেন এবং শঙ্কর মাহাদেবন তাঁর লিটল সুনিধি চৌহানকে অত্যন্ত আন্তরিকতায় স্নেহ শ্রদ্ধা মিশ্রিত মানসিক পরিস্থিতির সম্মুখীন হন। শংকর মহাদেবন সুনিধি প্রেরণের জন্য জেটশেনের গানের ভিডিও রেকর্ডও করেছিলেন।

জেটসেন দোহনা লামার দ্বিতীয়-

জেটসেন দোহনা লামার দ্বিতীয় পারফরমেন্স হল ‘ভিগি ভিগি সি হে রাতে’। গানটি সংগীতকার প্রীতম চক্রবর্তী এবং গেয়েছেন জেমস। ছবির নাম গ্যাংস্টার। এই গানটিও জেটসেন অসাধারণ ফুটিয়ে তুলেছেন। তার মৃদুভাষা, কথা বলার সঙ্গে গানের পিচ এবং সুর সম্পূর্ণভাবে বিপরীতমুখী পূর্বেই বলেছি ঔ। একজন সাধারন মানুষ তার কথাবার্তা শুনে কখনো মনে হবে না যে, সে এই ধরনের হাইপিচের গান গাইতে পারবে।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ভারতি সিং পর্যন্ত ভীষণভাবে অবাক হয়েছেন। কেননা তাকে গান শুরু করার পূর্বে ভারতি যে প্রশ্নগুলি করেছিলেন এবং তার উত্তরে যেভাবে কথা বলেছিল, তাতে মনে হয়েছিল খুবই সাধারণ সাদামাটা লাজুক একটি মেয়ে। কিন্তু গানের পারফরমেন্স দেখে ভারতির অবাক হওয়ার মুখের ছবি দর্শকদের চোখে পড়েছে।

Real NameJetshen Dohna Lama
Birth Date/ Year2013
Age9 Years
CityPakyong, Sikkim
SchoolEl Bethel Academy, Sikk
Study inচতুর্থ শ্রেণী
Mother’s NameUnis Hamal
Father’s Nameজানা যায়নি
Brother/Sisterজানা যায়নি

জুড়িদের কাছ থেকেও প্রশংসিত-

জেটসেন দোহনা লামা কেবল বিচারকদের কাছ থেকে নয়, জুরির কাছ থেকেও প্রশংসিত হয়েছিল। তার পারফরম্যান্স প্রত্যেককে সন্তুষ্টি দিয়েছে। জেটসেন বলে যে সে কোনও প্রশিক্ষণ ছাড়াই নিজেই সংগীত শিখে ওই জায়গায় পৌঁছেছে। শঙ্কর মহাদেবন বলেন- যে তিনি সুনিধি চৌহানের মতোই স্বাভাবিক ভাবে সংগীত প্রদত্ত জন্মগ্রহণকারী সংগীত শিল্পী। সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পস 2022 জি টিভি শোতে জেটশেন দোহনা লামার সংগীত পরিবেশন দেখতে ভুল করবেন না।

জেটসেন দোহনা লামা তার শৈশব থেকে গান গাওয়ার প্রতি খুব আগ্রহী। সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পস জেটশেন লামার ছবিটি দেখুন, সে তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেছে। যেখানে সে নিজের হাতে মাইক ধরে গাইছে। জেটশান এত ছোট বয়সে মঞ্চে অনুষ্ঠান করেছে যেখানে প্রচুর দর্শক শ্রোতা তাঁর গান শোনার জন্য জড়ো হয়েছিল। 

জেটসেন লামা জুনিয়র সিকিম আইডল সিজন 1 এর অংশগ্রহণকারী একজন বিজয়ী। যেখানে তিনি 2022 সালের মে মাসে 1 লক্ষ টাকা পুরষ্কারের অর্থ জিতেছিলেন। জেটসেন দোহনা লামা 2022 সালের অক্টোবর পর্যন্ত 456 জন ফলোয়ারদের সাথে সোশ্যাল মিডিয়া ইনস্টাগ্রামে সক্রিয় রয়েছেন।

সা রে গা মা পা লিটল চ্যামপ সিজন 9 বিজয়ী

রবিবার জনপ্রিয় টিভি রিয়েলিটি শো সারে রে গা মা পা লিটল চ্যাম্পের মঞ্চে সিকিমের নয় বছর বয়সী জেটসিন দোহনা লামা বিজয়ীর মুকুট উঠল। ওই অনুষ্ঠানে বিচারকদের একটি প্যানেল ছিল। তারা হলেন শঙ্কর মহাদেবন, অনু মালিক এবং নীতি মোহন এই রিয়েলিটি শো-এর পুরো সিজনে তরুণদের সুন্দরভাবে গাইড করেছেন। সেই অনুষ্ঠানের উপস্থাপক ছিলেন ভারতী সিং। তিনি তার রসিকতা দিয়ে দর্শকদের বিনোদিত করেছেন। শো শুরু হওয়ার তিন মাস পর বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়। বিজয়ী হলেন জেটসিন দোহনা লামা

রবিবার, ছোট গায়কদের সুরের জাদুতে সা রে গা মা পা-এর মঞ্চ আলোকিত হয়েছিল। এই অনুষ্ঠানটি টেলিভিশনে খুবই জনপ্রিয়। গানের এই প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠানটি গত তিন মাস ধরে দর্শকদের বিনোদন দিয়ে আসছে। সিকিম থেকে প্রতিযোগী জেটসিন দোহনা সা রে গা মা পা লিটল চ্যাম্প বিজয়ী হিসাবে আবির্ভূত হয়। গ্র্যান্ড ফাইনালে জেটসিন বিজয়ী ট্রফি জিতেছে।

অন্যদিকে প্রথম ও দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন হর্ষ সিকান্দার ও ধনেশ্বরী ঘাডগে।

সা রে গা মা পা’-এর রবিবারের মঞ্চ ছিল দর্শকে ভরা। কারণ এটাই ছিল গ্র্যান্ড ফিনালে। এই উপলক্ষে ছয়জন প্রতিযোগী চূড়ান্ত মঞ্চে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। অতিথিরা সাহায্য করেন নয় ঠিকই কিন্তু শোতে উপস্থিত বিচারকের আসন থেকে এই 6 প্রতিযোগীর সুরের জাদুর যথেষ্ট প্রশংসা করেছিলেন। এই ৬ জনের গান সবাইকে চমকে দিয়েছে। তবে শুধু প্রতিযোগীই নন, বিচারক নীতি মোহন এবং শঙ্কর মহাদেবনও তাদের গান দিয়ে অন্যরকম পরিবেশ তৈরি করেছিলেন।

জেটসিন 10 লাখ টাকা জিতেছে এবং সঙ্গে বিজয়ীর ট্রফিও জিতেছে। সিকিমের জেটসিন দোহনা লামা তার তিন বছর বয়স থেকে সঙ্গীত প্রশিক্ষণ নিতে শুরু করেন। বিজয় ট্রফি হাতে নিয়ে উচ্ছ্বসিত সারেগা মা পা লিটল চ্যাম্পস।

জেটসেন দোহনা লামা উইকি, জীবনী, বয়স, পরিবার বিশদ এখানে আপডেট হয়েছে।

আরো পড়ুন- ভারতের বিস্ময় কন্যা জাহ্নবী পানোয়ার।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *